No icon

মহানগরে প্রকৃতির থিমে শুরু হল অভিনব চিত্র প্রদর্শনী প্যাশনে এ ভিয়ে

আধুনিকতারযুগে  কংক্রিটের শহরে প্রকৃতি আজ বিপন্ন। সারি সারি উঁচু ইমারতের ভিড়ে ক্রমশ হারিয়ে যাচ্ছে বন্য সৌন্দর্য। তাই পর্ণা মিত্র, ঈশানি ধর এবং অগ্নিপ্রভ নাথের  রং, তুলি কিংবা ফটোগ্রাফির ছোঁয়ায় প্রকৃতির থিমে আয়োজিত হল এক অভিনব চিত্র প্রদর্শনী ''প্যাশনে এ ভিয়ে '। শুত্রুবার  কলকাতার আইসিসিআর-এর অবনীন্দ্র গ্যালারিতে পরিচালক রাজ চক্রবর্তী এবং প্রখ্যাত চিত্রকর ওয়াসিম কপূর-এর উপস্থিতিতে শুরু হল তিনদিনব্যাপী প্রকৃতিগত এই চিত্র প্রদর্শনী। এই প্রদর্শনীতে প্রদর্শিত হচ্ছে  শিল্পীদের ৫০টি শিল্পকর্ম । দুপুর ৩টে থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে এই  প্রদর্শন ।

প্রদর্শনী সম্পর্কে এদিন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী জানান, "ফিল্মমেকার হিসাবে আমার সবসময় মনে হয় যে একজন ভালো পেন্টার সে পারে সব মিডিয়ামে কাজ করতে। কারণ একটি সাদা ক্যানভাসে তাঁকে তাঁর মনের ভাবনাকে পোট্রেটের মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলতে হয়। এখানে প্রত্যেকেই  খুবই ট্যালেন্টেড। নেচারকে কখনো রঙের সাহায্যে বা ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফির মাধ্যমে তুলে ধরেছে যা সত্যিই অসাধারণ।"

"এখানে রঙের জাদু এবং ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফি মিলেমিশে একাকার। অসাধারণ শিল্পকর্ম। আর্টিস্ট যখন পেন্টিং করে তখন অন্য ধরনের হয় অন্যদিকে দর্শকদের কাছে তা অন্যভাবে প্রকাশিত হয়। একজন ভালো শিল্পীর এটাই গুণ"-এদিন এমনই মন্তব্য চিত্রকর ওয়াসিম কপূরের।

ছোটবেলার সেই রং তুলির টান আজ তাঁর জীবনের অঙ্গ। প্রকৃতির প্রতি অদম্য ভালোবাসার তাগিদে তাঁর  মনে বারংবার দাগ কাটে  সম্প্রতি ঘটে যাওয়া পৃথিবীর বৃহৎ রেইন ফরেস্ট আমাজনের ভয়াবহ দাবানলের স্মৃতি। তাই  এদিনের প্রদর্শনীতে তুলির টানে চিত্রশিল্পী পর্ণা মিত্র ফুটিয়ে তুলেছেন প্রকৃতির সেই ভয়াবহতা। নিজের শিল্পকর্ম সম্পর্কে তিনি জানান, "আজকে  মূলত প্রকৃতির থিমে ল্যান্ড স্কেপের উপর কাজ করেছি। এখানে প্রদর্শিত হচ্ছে আমার একক ১৪টি চিত্র। সবার প্রশংসা পেয়ে আমি আপ্লুত। ভবিষ্যতে আরো ভালো ভালো কাজ করতে চাই।"

নিজের প্রদর্শিত পেন্টিং সম্পর্কে চিত্রশিল্পী ঈশানি ধর জানান,"ছোটবেলা থেকে পেন্টিং করতে ভালোবাসতাম। স্কুলে যখন পেন্টিং করতাম টিচাররা খুব এনক্যারেজ করতেন।এরপর  কলাভবন থেকে আমার পেন্টিং শেখা  । এখানে আমার নেচার বেস মোট ১৫টি পেন্টিং রয়েছে।"

বরাবরই তাঁর প্রিয় ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফি। বিগত আট বছর ধরে তাঁর আলোকমালায় ফুটে উঠেছে বন্য প্রাণীদের নানান সৌন্দর্য। ইতিমধ্যে  'হইচই' ফিল্মের মাধ্যমে তিনি কাজ করেছেন টলিউডে। এই প্রদর্শনীতে রয়েছে তাঁর ১৯টি ফটোগ্রাফ। নিজের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফর অগ্নিপ্রভ নাথ জানান, " মানুষের অজ্ঞতার কারণে আজ প্রকৃতির পাশাপাশি সংকটে বন্য প্রাণীরা। ফটোগ্রাফির মাধ্যমে আমি মানুষের মধ্যে সচেতনতা তুলে ধরতে চাই।"

এদিন এই প্রদর্শনীর উপস্থাপনার দায়িত্বে ছিলেন চিত্রনাট্যকার পদ্মনাভ দাশগুপ্ত। প্রদর্শনীর সম্পর্কে তিনি জানান, "দিদি(পর্ণা মিত্র) বরাবরই ভালো পেন্টিং করে। আজকে দিদির পাশে থাকতে পেরে আমি খুব খুশি।"

আপনাদের জানিয়েরাখি, চলতি বছর ২০ মার্চ মুক্তি পেতে চলেছে পরিচালক  রাজ চক্রবর্তী'র রাজনৈতিক থ্রিলার  ছবি 'ধর্মযুদ্ধ'। 

Comment