No icon

বাইরে এসো না ।।

অহনা নাসরিন 

শোকের তুষারে ছেয়ে গেছে এই শহরের 
অলিগলি 
বাইরে এসো না তুমি।
এ পথে-পথে বিছানো আছে 
বিষণ্ণতার কংক্রিট 
হাঁটতে গেলে হোঁচট খেয়ে পড়ে যাবে।

হাতে-হাত মেলাবে, বুকে-বুক
এসব পরে হবে, শুধু চোখে-চোখ 
কথা হোক তবে-
তিন-ফুট দূরত্ব কিংবা তার অধিক।

এই শহর আধুনিকা তার নেপথ্যের গল্প
মায়ের আর্তনাদ
বোনের চোখের জল, ভাইয়ের বিবাদ।

আপন-পর বাচ-বিচার মুখে-মুখে হয় 
পাখির আবাস
এখন ভীষণ নিরাপদ
কাকের বাসায় যেমন কোকিল  রয়।

পাতায় পাতায় পাবে না, তুমি
বিশুদ্ধ অক্সিজেন।
পোড়া মিথেন, কার্বন ডাই-অক্সাইড 
বাতাসে-বাতাসে
মাধবীলতা, এখন তুমি বাইরে এসো না।

নিদাঘ দুপুর, ক্লান্ত বিকেল, একাকী সকাল
অমোঘ সত্য চৌদ্দ প্রহর 
নিঃসঙ্গ রাত্রি-যাপন। 
এরপর মুক্তির স্বাদ অম্ল-মধুর।

প্রত্যুষের দেখা মিলবে কোন এক সকালে
অপেক্ষায় বাঁচো, 
এ সংকটে ডাকো তারে 
জানো তবে-  
কোন-কোন দুঃস্বপ্ন বাঁচার প্রেরণা যুগায়। 

এ সংকটে বাইরে এসো না মাধবীলতা।

Comment