No icon

FORUM

সম্পন্ন হল ইস্ট কলকাতা টাউনশিপ সিটিজেনস্ ফোরাম-এর ১৩তম বার্ষিক অনুষ্ঠান

অর্থনৈতিক ভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষদের সঙ্গে নিয়ে এক অভিনব ভাবনায় ইস্ট কলকাতা টাউনশিপ সিটিজেনস্ ফোরাম-এর পক্ষ থেকে আয়োজিত হল ১৩তম বার্ষিক অনুষ্ঠান । রবিবার কলকাতায় অবস্থিত গীতাঞ্জলি স্টেডিয়ামে এই আনন্দানুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মৌলনা আবুল কালাম আজাদ ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজির উপাচার্য তথা অধ্যাপক শ্রী সৈকত মিত্র, মন্ত্রী তথা সঙ্গীতশিল্পী শ্রী ইন্দ্রনীল সেন, বিশিষ্ট অভিনেতা শ্রী মনু মুখার্জী, মিরাক্কেল খ্যাত হাস্যকৌতুক শিল্পী ডঃ কৃষ্ণেন্দু চ্যাটার্জি, বিশিষ্ট সাংবাদিক শ্রী জয়ন্ত চক্রবর্তী, শ্রীমতী শাশ্বতী মিত্র, ১০৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তথা ১২ নম্বর বোরো চেয়ারম্যান  শ্রী সুশান্ত কুমার ঘোষ, ইস্ট কলকাতা টাউনশিপ সিটিজেনস্ ফোরাম-এর সভাপতি শ্রী দিলীপ কুমার চ্যাটার্জি, সাধারণ সম্পাদক শ্রী বিজয় কৃষ্ণ কর  সহ অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

এদিন মাননীয় অতিথিদের সম্মাননা প্রদান করা হয়। এছাড়া বীমার আওতায় আনা হয় অসংগঠিত দরিদ্র শ্রমিকদের । শুধুতাই নয় অসহায় দরিদ্র শিশুদের হাতে লেখাপড়ার সামগ্রী তুলে দেওয়া হয় এবং এর সাথে সাথে এলাকার বৃদ্ধাশ্রমকেও সংবর্ধনা দেওয়া হয় । একইসঙ্গে 'হোপ কলকাতা ফাউন্ডেশনে'র মহিলা ফুটবলারদের খেলায় অনুপ্রাণিত করার জন্যে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয় আর্থিক সাহায্য  । এছাড়াও বিভিন্ন সেবামূলক সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয় এই সংগঠন। পাশাপাশি জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীর ১৫০তম জন্ম শতবর্ষ উপলক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই দিনটিকে বিনোদনের মোড়কে  উদযাপন করা হয়। যেখানে নৃত্যশিল্পী লিপিকা মান্না-র 'কলকাতা কলাক্ষেত্র', নৃত্যশিল্পী পিয়ালী দাস-এর 'পিয়ালী ড্যান্স ইনস্টিটিউশন', 'সারদা কালচারাল একাডেমি', 'নৃত্যাঙ্গন'-এর ছাত্রছাত্রীদের অসাধারন নৃত্যশৈলী দর্শকদের মুগ্ধ করে। এছাড়া  সঙ্গীত পরিবেশনা, মুখাভিনয়, ছোটদের আবৃত্তি পরিবেশনায় মোহময় হয়ে ওঠে এদিনের সন্ধ্যা।

এই অনুষ্ঠান সম্পর্কে ইস্ট কলকাতা টাউনশিপ সিটিজেনস্ ফোরাম সভাপতি শ্রী দিলীপ কুমার চ্যাটার্জি জানান," ১৪বছর ধরে অর্থনৈতিক ভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষদের জন্য আমাদের এই সংগঠন বিভিন্ন সেবামূলক কাজ করে চলেছে। এবছর প্রায় ১৬৫জন অসংগঠিত দরিদ্র শ্রমিকদের বীমার আওতায় আনতে পেরেছি। ভবিষ্যতে আমরা  এই সংগঠন বাড়াতে চাইছি যাতে এরকম আরো সেবামূলক কাজ করে যেতে পারি"।

 মিরাক্কেল খ্যাত জনপ্রিয় হাস্যকৌতুক শিল্পী তথা চিত্রপরিচালক ডঃ কৃষ্ণেন্দু চ্যাটার্জি এদিন এই অনুষ্ঠান সম্পর্কে জানান, "এটা খুব ভালো উদ্যোগ, এখানে আসতে পারে খুবই ভালো লাগছে। এদের সাথে আমি প্রায় ৭-৮ বছর ধরে  যুক্ত।একজন শিল্পী, একজন পরিচালক হিসেবে আমি আমার মত এই সব সামাজিক বিষয় নিয়ে কাজ করে চলেছি যাতে আরো বেশি সংখ্যক মানুষেরা এগিয়ে আসতে পারে".

আপনাদের জানিয়েরাখি , খুব শীঘ্রই  আসতে চলেছে  ডঃ কৃষ্ণেন্দু চ্যাটার্জি-এর পরিচালিত পথ শিশুদের নিয়ে খাবার অপচয় সংক্রান্ত সামাজিক বার্তাবহ স্বল্প দৈঘ্যের ছবি 'হাফ অ্যান আওয়ার উইথ চার্লি'।

 সবশেষে বলা যায়, আর্থিক সাহায্য এবং বিনোদনের মাধ্যমে সম্পন্ন হল ইস্ট কলকাতা টাউনশিপ সিটিজেনস্ ফোরাম-এর ১৩তম বার্ষিক অনুষ্ঠান।

Comment