No icon

Digital Platform

শপিং -এর বাজারে অনলাইনের  আনন্দ

- প্রিয়তোষ আইচ

উৎসব মানেই আনন্দ আর এই আনন্দ আরো বেড়ে যায়  শপিং-এর মাধ্যমে। আধুনিক যুগে যেমন বদলাচ্ছে  মানুষের দৈনন্দিন জীবন  ঠিক তেমনি বদলাচ্ছে কেনাকাটার ছন্দ।  পরিবর্তনশীল যুগে শপিং দুনিয়ায় বেশ পরিচিত নাম অনলাইন শপিং। এই ইঁদুর দৌড়ে রোদ, জ্যাম ,ভিড় ঠেলে বাজার ঘুরে পণ্য না কিনে ঘরে বসে এক ক্লিকে পন্য কেনার প্রতি সবার আগ্রহ হচ্ছে বেশী। অনলাইনে কেনাকাটা এখন এতটাই সহজ ও স্বাভাবিক হয়ে গেছে যে  এতে বেশ অভ্যস্ত হয়ে পড়ছে শপিংপ্রেমীরা। আর হবে নাই না কেন! দৈনন্দিন জীবনে ইন্টারনেটের প্রয়োজন সর্বত্র তাহলে শপিং-এর ক্ষেত্রেই বা বাদ যাবে কেন? কিন্তু এই শপিং-এর  যেমন রয়েছে সুবিধা তেমনি রয়েছে  কিছু অসুবিধা।জেনে নেওয়া যাক অনলাইন শপিং এর কিছু সুবিধা আর অসুবিধা..... 

ব্যস্ত এই সময়ে বাজার ঘুরে ঘুরে কোন কিছু কেনার সময় এখন আর নেই। অনলাইন শপগুলো আমাদের সময় বাচিঁয়ে দেয় অনেকখানি। তাছাড়া অনলাইন শপিং-এর জন্য  নিৰ্দিষ্ট কোন সময়ের প্রয়োজন হয় না। মধ্যরাত হোক কিংবা যে কোন সময়ে    একাধিক শপিং সাইট দেখে অনায়াসে ঘরে বসে বেছে নিতে পারেন আপনার পছন্দের পণ্য ।পাশাপাশি অনলাইনের পন্যদ্রব্যের দাম তুলনামূলকভাবে থাকে কম । এছাড়াও এইসব সাইটে অনেক সময় সারাবছরই  থাকে বিভিন্ন ধরণের 

অফারের হাতছানি। অনলাইন শপেও রয়েছে অন্যান্য ব্র্যান্ডের পাশে  নামী  ব্র্যান্ডের সম্ভার। ফলে ঘরে বসে অতি সহজেই থাকে এইসব ব্র্যান্ডকে আপন করে নেওয়ার সুবিধা। 

সুবিধার পাশাপাশি  অনলাইন শপিং রয়েছে কিছু সমস্যা। অফলাইন শপিং-এর ক্ষেত্রে দামদড় করে নিজের পণ্য বা দ্রব্য সামগ্রী হাতে ধরে কিনতে পারা যায় । অনলাইনের ক্ষেত্রে সেটা সম্ভব নয়। যেসব ক্রেতারা  ইন্টারনেট ব্যবহারে অভ্যস্ত নন তাঁদের ক্ষেত্রে অফলাইন শপিং গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।অনেকসময় অসাবধানতায়  অনলাইন শপিং-এ ঘটে যায়  প্রতারিত হওয়ার সমস্যা।  

সবশেষে বলাইযায় ,  দৈনন্দিন জীবনে কেনাকাটার আনন্দে অফলাইনের পাশাপাশি অনলাইনের শপিং হোক জমজমাট ।

Comment