No icon

এক লক্ষ গাছ লাগানোর পরিকল্পনা করলো বন্ধন

সরকারি উদ্যোগে এনকেডিএ-র নতুন প্রকল্প বন-মহোৎসবে এবার যোগ দিলো বন্ধন। এ বছর মোট ১ লক্ষ গাছ লাগানোর পরিকল্পনা করেছে বন্ধন ব্যাংকের সামাজিক উন্নয়নমূলক কাজে নিযুক্ত শাখা বন্ধন কোন্নগর। এই সপ্তাহে সেই পরিকল্পনার বাস্তব রূপায়ণ শুরু হলো নিউ টাউনে। পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও বন্ধনের এই বৃক্ষরোপন প্রকল্প বিহার, ঝাড়খন্ড, অসম ও রাজস্থানের মতো রাজ্যগুলিতেও বাস্তবায়িত করা হবে।

এনকেডিএ-র থেকে একটি ১.৬৯ একর জমির দায়িত্ব নিয়ে বন্ধন সেখানে ফুল, ফল ও ওষধিগুণসম্পন্ন ভেষজ গাছের চাষ শুরু করেছে। এই সপ্তাহে মোট এক হাজার গাছ ওই জমিতে লাগানো হচ্ছে। ড্রাগন ফল, ডালিম ইত্যাদি পুষ্টিগুণে ভরা ফলের গাছ ছাড়াও ওই জমির সামগ্রিক শ্রীবৃদ্ধির জন্যেও বহু প্রজাতির ফুলের গাছ ও পাতাবাহারও সেখানে লাগানো হবে।

বায়ুস্তরে প্রতিনিয়ত বেড়ে চলা কার্বন ডাইঅক্সাইডের ক্ষতিকারক সীমার উর্দ্ধে উঠে যাওয়া আটকাতে এখন একমাত্র হাতিয়ার হলো অবিরাম বৃক্ষরোপন। এই কথা মাথায় রেখেই রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে বন মহোৎসবের সূচনা করা হয়েছে। সামাজিক উন্নয়নের কাজে যুক্ত সমস্ত সংস্থাদের অনুরোধ করা হয়েছে এই জরুরি কাজে এগিয়ে আসতে ও একেকটি জমির দায়িত্ব নিয়ে সেখানে বিভিন্ন গাছের চাষ করতে।

বন্ধনের প্রতিষ্ঠাতা শ্রী চন্দ্রশেখর ঘোষ বলেন, "পৃথিবীতে এখন জলবায়ু পরিবর্তনের সমস্যাটি একটি বিশাল আকার নিয়েছে। বিশ্ব উষ্ণায়ন একটু একটু করে মানুষকে সমূহ বিপদের মুখে ঠেলে দিচ্ছে। অনেক বহুজাতিক সংস্থা এই ব্যাপারে নিয়মিত কাজ করে চলেছে। আমাদের স্বল্প সামর্থ্যে আমরাও এগিয়ে এসেছি এবং এই বছরে এক লক্ষ গাছ লাগানোর পরিকল্পনা করেছি। বন-মহোৎসবের মতো মহৎ প্রকল্পে বন্ধন কোন্নগরকে আহ্বান জানানোর জন্যে আমরা রাজ্য-সরকার ও এনকেডিএ-র কাছে কৃতজ্ঞ।"

Comment